আপওয়ার্ক অথবা মার্কেটপ্লেস থেকে ওয়্যার ট্রান্সফার (USD Wire Transfer)

ওয়্যার ট্রান্সফারের সবচেয়ে সুবিধা হল যদি আপনারা কিছুটা বড় এমাউন্ট আপওয়ার্ক থেকে উইথড্র দিতে চান সেক্ষেত্রে আপনি মোটামুটি ভালো রেট পাবেন, এক্ষেত্রে আপনার টাকার পরিমাণ একটু বেশি হবে কারণ ব্যাংক যে রেটে ডলার ক্রয় করে আপনি সেই রেটই পাবেন। আমার মতে আপনার উইথড্র এমাউন্ট যদি দুই হাজার ডলারের উপর হয় তাহলে ওয়্যার ট্রান্সফার হবে সবচেয়ে ভাল অপশন।

প্রথমে আপনার আপওয়ার্ক একাউন্ট থেকে “Settings” এ যাবেন তারপর ক্লিক করুন ” Get Paid”। এখন আপনি পাবেন “Add Method” অপসন।

 

ক্লিক করুন ” Add Method” এ। এখন আপনি পাবেন “Set Up” অপসন ব্যাংক একাউন্ট যুক্ত করার জন্য। এখন ক্লিক করুন “Set Up” এ, রেড মার্ক চিহ্নত নিচের ছবিতে।

 

নিচের ছবিতে মার্ক করা এই তথ্য গুলো পূরণ করে “Add this Account” বাটন এ ক্লিক করুন রেড মার্ক চিহ্নত নিচের ছবিতে। সব তথ্য-উপাত্ত ঠিকমত দিয়ে থাকলে আগামী তিন দিনের মধ্যে আপনার এই অ্যাকাউন্ট ওয়্যার ট্রান্সফারের জন্য সচল হবে।

 

এবার আপওয়ার্ক থেকে উইথড্রয়ের পরে একটা মেইল আসে, এটার একটি প্রিন্ট কপি নিবেন (লাগে না কিন্তু চাই মাঝে মাঝে) তারপর “সি ফর্ম” টি পূরুন করে দিবেন।

আর কোনো ক্লায়েন্ট যদি আপওয়ার্কের বাহিরে বা সরাসরি আপনাকে পেমেন্ট দেয় সেক্ষেত্রে প্রমান হিসাবে ক্লায়েন্টের সাথে আপনার চুক্তিপত্র(প্রথমবার দিতে হয় শুধু) তারপর সি ফর্ম টি পূরুন করে দিবেন। এইভাবে একই উৎস থেকে বার বার টাকা আসলে তারপর “সি ফর্ম” ও আর লাগে না। আমার ক্ষেত্রে আমি কর্মদিবসের মধ্যে সবসময় টাকা পেয়ে যাই।

যদিও ৩০ ডলার চার্জ কাটে (আপওয়ার্ক থেকে উইথড্রয়ের ক্ষেত্রে) কিন্তু ব্যাংক যে রেটে ডলার ক্রয় করে আপনি সে রেটই পাবেন সবসময়। তবে এখানে বলা বাহুল্য যে, কিছু কিছু ব্যাংক হয়তো কিছুটা অতিরিক্ত চার্জ ধরে বা কারো কারো ক্ষেত্রে বাংলাদেশী  মুদ্রায় ডলারের রেটেরও তারতম্য হতে পারে, এটা বলতে পারেন ব্যাংকের স্বতন্ত্র কোনো পলিসি। সেই হিসেবে হিসেব করলে দেখা যাবে যে আপনি কিছু কমও টাকা পেতে পারেন। আমি মনেকরি যদি আপনার ডলার উইথড্র পরিমান পনেরশো(১৫০০) ডলার বা তার বেশি হয় সেক্ষেত্রে এটা আপনার জন্য ভালো হবে আশাকরি। ক্লায়েন্ট যদি আপওয়ার্কের বাহিরে বা সরাসরি আপনাকে আমাদের স্থানীয় ব্যাংকের মাধ্যমে পেমেন্ট দেয় সেক্ষেত্রে ৩০ ডলার চার্জ লাগবে না।

যা যা করতে হবে :
উইথড্র দেওয়ার পর ব্যাংক এ যাবেন, রেমিট্যান্স ডেস্ক এ ডকুমেন্ট গুলো দিয়ে আসবেন(প্রিন্ট কপি + সি ফর্ম)। আর সি ফর্ম ব্যাংক আপনাকে দিবে পূরণ করার জন্য। অথবা ডলার আসার পর ব্যাংক আপনাকে ফোন করবে, ফোন করার পর আপনি চাইলে তাদের সাথে ইমেইল কমিউনিকেশনে পরবর্তী কার্যক্রম করতে পারেন। আবারো বলছি, এইভাবে একই উৎস থেকে বার বার টাকা আসলে ব্যাংক আপনাকে আর ফোনও করবেনা দেখবেন অটোমেটিক্যালি টাকা আপনার একাউন্টে জমা হয়ে গেছে। 

পরিশেষে, যদি লেখাটি আপনার কোনো প্রকার উপকারে আসে তাহলে দয়াকরে সকল ফ্রীলান্সার ভাইদের সঙ্গে শেয়ার করতে ভুলবেন না। দেশের জন্য এবং দেশকে ভালোবেসে কাজ করুন। মার্কেটপ্লেসে আমাদের কাজের গুণমান ঠিক রাখতে সহযোগিতা করুন। কোনো প্রকার প্রশ্ন থাকলে কমেন্ট করুন, আমি যথাসাথ্য চেষ্টা করবো আপনার প্রশ্নের উত্তর বা আপনাকে সহযোগিতা করার জন্য।

আপওয়ার্ক অথবা মার্কেটপ্লেস থেকে ওয়্যার ট্রান্সফার (USD Wire Transfer)

Write a comment....

Scroll to top
error: Content is protected !!
%d bloggers like this: